Blog entry by Apu Majumder

Anyone in the world

প্রেজেন্টশন হলো কোন বিষয় সম্পর্কে দর্শকের সামনের সুন্দরভাবে বিষয়টি উপস্থাপন করা। আমাদের দৈন্দদিন জীবনে প্রেজেন্টশন এর গুরুত্ব রয়েছে। প্রেজেন্টশন অনেক ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যায়। যেমন: শিক্ষা, ব্যবসায়, চাকরির ইন্টারভিউতে ইত্যাদি। একটি সুন্দর প্রেজেন্টশনের উপর অনেক কিছু নির্ভর করে। হতে পারে তা আপনার ব্যবসায়ে নতুন কাজ পেতে অথবা হতে পারে তা আপনার চাকরির পাওয়া।

প্রেজেন্টশন সাধারণত কম্পিউটার সফট্ওয়্যার পাওয়াপয়েন্ট এর মাধ্যমে করা হয়। অল্প কিছু নিয়ম-নীতি আপনার পাওয়াপয়েন্ট প্রেজেন্টশনকে করে তুলতে পারে দৃষ্টিনন্দন ও আকর্ষণীয়। তাহলে চলুন এক নজরে দেখে আসি, কিভাবে অল্প কিছু নিয়ম-নীতির মাধ্যমে নিজের পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টশনকে সুন্দর করে তোলা যায়।

 

১। সহজবোধ্য (Simple)

পাওয়াপয়েন্ট প্রেজেন্টশন অবশ্যই সহজবোধ্য হতে হবে। আপনার প্রেজেন্টশন যত সহজবোধ্য হবে, তত দ্রুত ও সহজে দর্শকরা আপনার প্রেজেন্টশন বুঝতে পারবে এবং আপনার প্রেজেন্টশন আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে। তাই সবসময় প্রেজেন্টশনকে সহজবোধ্য করে গড়ে তোলা উত্তম। Abdullah Ahmad Badawi  বলেছেন - “It must be a balance in everything we do, not too much of everything, keep it simple, not complicated.”

২। বুলেট পয়েন্ট ও পাঠ্য সীমিত(Limited Bullet Point and Text)

কোন লেখা যদি বুলেট পয়েন্ট আকারে দেওয়া যায় তাহলে লেখাটি বুঝতে সহজ হয়। কিন্তু অতিরিক্ত বুলেট পয়েন্ট এর ব্যবহার এবং অতিরিক্ত লেখা প্রেজেন্টশনের সৌন্দর্য নষ্ট করে। তাই, বুলেট পয়েন্ট এর সীমিত ব্যবহার করা এবং পাঠ্য ছোট লেখা উত্তম।

৩। নতুন টেমপ্লেট তৈরি (Create New Template)

আমরা সাধারণত সবাই পাওয়ারপয়েন্টে থাকা বিল্ড-ইন টেমপ্লেট ব্যবহার করি। যা বর্তমানে সবার কাছে বিরক্তিকর হয়ে উঠেছে। তাই বর্তমানে পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টশনে নতুন টেমপ্লেট ব্যবহার করলে, তা দর্শকের নিকট আকর্ষণীয় হয়ে উঠে। বিভিন্ন ধরনের নতুন টেমপ্লেট ইউটিউবে এবং গুগলে সার্চ করলে পাওয়া যায়।

৪। সীমিত অ্যানিমেশন (Limited Animation)

পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টশন এর একটি বিশেষ সুবিধা হল অ্যানিমেশন। অ্যানিমেশনের ব্যবহারে আপনার প্রেজেন্টশনটিকে দর্শকের কাছে আরো আকর্ষণীয় করে তোলে। কিন্তু অতিরিক্ত অ্যানিমেশন এর ব্যবহারে প্রেজেন্টশনটি দর্শকের নিকট বিরক্তিকর হয়ে উঠে। তাই পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টশনে অতিরিক্ত অ্যানিমেশন এর ব্যবহার বর্জন করা উচিত।

৫। উচ্চ মানের গ্রাফিক্স ব্যবহার (Use High Quality Graphics)

গ্রাফিক্স কোন কিছুকে অনেকটা বাস্তবিক ও আকর্ষণীয় করে তোলে। পাওয়াপয়েন্টের মাধ্যমে প্রেজেন্টশনে গ্রাফিক্স ব্যবহার করার সুবিধা থাকে। প্রেজেন্টশনে ছবি, ৩ডি এফেক্ট এর মতো উচ্চ মানের গ্রাফিক্স ব্যবহার করলে প্রেজেন্টশনটি দর্শকের কাছে অতি আকর্ষণীয় এবং মজাদার হয়ে উঠে।

৬। ইনফোগ্রাফির ব্যবহার (Use Infography)

ইনফোগ্রাফি হল কোন তথ্যকে ছবি আকারে দেখানো। পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টশনে ইনফোগ্রাফির মাধ্যমে কোন তথ্যকে ছবি আকারে দেখাতে পারলে, প্রেজেন্টশনটি সুন্দর ও আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে দর্শকের কাছে।

৭। মোশেনগ্রাফির ব্যবহার (Use Motiongraphy)

পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টশনের লেখা গুলো মোশনগ্রাফির মাধ্যমে উপস্থাপন করলে, দর্শক লেখাগুলো পড়তে বিরক্তবোধ করবে না এবং লেখাগুলো পড়ার আগ্রহ বৃদ্ধি পাবে।

৮। সুন্দর শুরু (Beautiful Beginning)

পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টশনের শুরুটা যদি সুন্দর এবং অনেক আকর্ষণীয় হয়, তাহলে দর্শকবৃন্দ প্রেজেন্টশনের প্রথম থেকেই তা সম্পন্ন দেখার আগ্রহ প্রকাশ করবে।

৯। যথাযথ রং ব্যবহার (Use Perfect Colour)

কোন কিছু সাদা-কালো বা রং ছাড়া কারোর কাছেই ভালো লাগে না। তেমনি পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টশনকে সুন্দর করতে হলে অবশ্যই রং এর ভাল ব্যবহার করতে হবে। ফন্ট, ব্যাকগ্রাউন্ড, স্লাইড ইত্যাদি সবকিছু সাথে মিল রেখে রং এর যথাযথ ব্যবহার করা হলে পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টশন দেখতে অনেক সুন্দর দেখাবে।

১০। ফন্ট (Font)

পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টশনে বিভিন্ন রকম ফন্ট ব্যবহার করা যায়। তাই, প্রেজেন্টশনের বিভিন্ন স্লাইডের লেখাগুলো ভিন্ন ভিন্ন ফন্ট ব্যবহার করলে, দর্শক প্রেজেন্টশনের লেখাগুলো পড়ার সময় উৎসাহিত হবে।

১১। ভিডিও বা অডিও ব্যবহার (Use of Audio or Video)

পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টশনের অন্যতম সুবিধা হল, প্রেজেন্টশনে অডিও ও ভিডিও যুক্ত করা যায়। যা পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টশনকে অন্য এক মাত্রায় নিয়ে যায়। পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টশনে দর্শককে কোনো ইনফরমেশন সহজে বোঝানোর জন্য ভিডিওর ব্যবহার এবং প্রেজেন্টশনটিকে আকর্ষণীয় করে তোলার জন্য সুন্দর অডিও ব্যবহার করা উত্তম।

১২। সঠিক স্লাইড প্রবাহ (Right Slide Flow)

পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টশনে অবশ্যই সকল স্লাইড, প্রেজেন্টশনের বিষয়বস্তুর অনুসারে সঠিক প্রবাহে সাজাতে হবে। যদি তা না করা হয়, তাহলে প্রেজেন্টশনের বিষয়বস্তু এবং সৌন্দর্য দুটিই নষ্ট হয়ে যাবে।

প্রেজেন্টশন সুন্দর ও দৃষ্টিনন্দন করার মূলনীতি হল সৃজনশীলতা। আপনার সৃজনশীল চিন্তায় আপনার উপস্থাপনাকে নিয়ে যাবে অন্যদের থেকে এগিয়ে। “Creativity is The Best Way to Live a Life”.

[ Modified: Wednesday, 8 August 2018, 7:43 PM ]